আন্তর্জাতিক গণিত অলিম্পিয়াড শুরু হলো আজ

আজ বাংলাদেশ সময় বেলা একটায় আন্তর্জাতিক গণিত অলিম্পিয়াডে (আইওএমও) আবারও সরাসরি পরীক্ষা দেবে শতাধিক দেশের শিক্ষার্থীরা। তিনটি সম্পূর্ণ নতুন গাণিতিক সমস্যার সমাধান করতে তাদের সাড়ে চার ঘণ্টা সময় লাগবে। শিক্ষার্থীদের মধ্যে বাংলাদেশের ছয়জন ক্ষুদে গণিতবিদ রয়েছেন। লাল ও সবুজ পতাকা হাতে তারা এখন নরওয়ের রাজধানী অসলোতে।

এর আগে, রবিবার, করোনায় দুই বছর বিরতির পর, 73তম গণিত বিশ্ব গণিত অলিম্পিয়াড আবার শুরু হয়েছে। নরওয়ের স্থানীয় সময় বিকাল ৩টায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে অনুষ্ঠান শুরু হয়। এর আগে, দলের সকল সদস্য হোটেল থেকে উদ্বোধনী স্থানে 15 মিনিট হেঁটে যান। অসলো শহরের প্রাণকেন্দ্রে অসলো কনসার্ট হলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত সবাই। অসলোর আকাশ খুব রঙিন এবং পরিষ্কার। চারিদিকে মিষ্টি রোদ। সারা বিশ্ব থেকে শত শত ছোট গণিতবিদ গণিত উদযাপনের জন্য ভেন্যুতে ভিড় করেছিলেন। সবাই নিজ নিজ দেশের পতাকা নিয়ে অন্য দলের সঙ্গে ছবি তুলতে ব্যস্ত। 104টি দেশের 600 টিরও বেশি ছোট গণিতবিদ এবারের আইএমওতে অংশ নিচ্ছেন। করোনা মহামারীর পর এটাই প্রথম শারীরিক ঘটনা, যে কারণে সবাই বেশি খুশি ও অভিভূত। এর মাধ্যমে আন্তর্জাতিক গণিত অলিম্পিয়াডে ১৬ বার লাল ও সবুজ পতাকা ওড়ানো হয়।

গণিত অলিম্পিয়াড কবে শুরু হবে?

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অসলো বিশ্ববিদ্যালয়ের রেক্টর স্টিভেন স্টেইন, অসলো শহরের ডেপুটি মেয়র আব্দুল্লাহ আলসাবেগ, গভর্নমেন্ট রিলেশন্স অ্যান্ড পাবলিক অ্যাফেয়ার্স ট্রুডোর ভাইস প্রেসিডেন্ট মাসোয়েড এবং আইএমও-এর প্রেসিডেন্ট জিওফ স্মিথ বক্তব্য রাখেন।

জিওফ স্মিথ বলেন, ‘অনেকদিন পর আমরা সবাই অলিম্পিয়াডে সরাসরি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পেরেছি। IMO শুধুমাত্র সমস্ত ছাত্রদের জন্য একটি প্রতিযোগিতা নয়, এটি একটি নেটওয়ার্কিং সুযোগও। এটি তরুণ গণিতবিদদের জন্য একটি উত্সব। ”

স্টিভেন বলেন, “সবাইকে অসলোতে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।” গণিত মুখের ভাষা নয়, বিজ্ঞানের ভাষা। গণিত বুঝতে ধৈর্য এবং প্রচেষ্টা প্রয়োজন। গণিত অলিম্পিয়াডে অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীসহ সকল আয়োজকদের অভিনন্দন। ‘

বাংলাদেশ দলের সদস্যরা হলেন সামসুল হক খান স্কুল অ্যান্ড কলেজ এসএমএ নাহিয়ান, নটরডেম কলেজ। আশরাফুল ইসলাম ফাহিম, সরকারি আনন্দমোহন কলেজের তাহজিব হোসেন খান, ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের নুজহাত আহমেদ দিশা, নটরডেম কলেজের তাহমিদ হামিম চৌধুরী ও ঢাকা রেসিডেন্সিয়াল মডেল কলেজের মো. ফুয়াদ আল আলম ছাড়াও সাব-টিমের নেতাদের মধ্যে রয়েছেন সাবেক আন্তর্জাতিক গণিত অলিম্পিয়াডের সদস্য আসিফ-ই-এলাহী, পর্যবেক্ষক হিসেবে তাহনিক নূর সামিন এবং বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াডের সমন্বয়কারী বায়েজিদ ভূঁইয়া।

৮ জুলাই রাতে ঢাকা থেকে রওনা হয়ে বাংলাদেশ দল ইস্তাম্বুল হয়ে ৯ জুলাই সকালে অসলোতে পৌঁছায়। প্রায় 15 ঘন্টার দীর্ঘ যাত্রার পর বিমানবন্দরে পৌঁছে আইএমও আয়োজকরা আমাদের অভ্যর্থনা জানান। বিমানবন্দরে আনুষ্ঠানিকতা শেষে দলটি বাসে করে হোটেলে পৌঁছায়। হোটেলে বাংলাদেশ দলকে স্বাগত জানান বাংলাদেশ দলের গাইড ফাহদ নেওয়াজ। স্কুল-কলেজ শেষ করে ঢাকা থেকে অসলোতে আসেন বাংলাদেশের ছেলে ফাহাদ। তিনি বর্তমানে অসলো বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তথ্য প্রযুক্তিতে পিএইচডি করেছেন। একই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অনার্স ও মাস্টার্স করছেন। আইএমও থাকাকালীন বাংলাদেশ দলের প্রয়োজনীয় যত্ন নেবেন ফাহাদ। বাংলাদেশ দলের নেতা মাহবুব মজুমদার গত ৮ জুলাই এখানে আসেন।

সূত্র: প্রথম আলো

About adminbd

John Romeo is a content writer.

View all posts by adminbd →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *